শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
ঈদ এলেও তাদের স্বপ্ন বাড়ি যায় না ঈশ্বরদীতে ঈদ বাজারে শেষ মুহূর্তে বিক্রি বেড়েছে প্রসাধনী সামগ্রীর ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পিতা : চির বিদায় ঈশ্বরদীতে সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাস্তবায়নে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে মতবিনিময় সভা ঈশ্বরদীতে মুড়ির ফ্যাক্টরি সহ তিন প্রতিষ্ঠানে অভিযান,জরিমানা ৮০ হাজার টাকা ঈশ্বরদীতে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্রীড়া দিবস পালিত ঈশ্বরদীতে ধানক্ষেত থেকে মেছো বাঘ উদ্ধার রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের অগ্রগতি পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানী বিষয়ক উপদেষ্টা বাংলা নববর্ষ পহেলা বৈশাখ উদযাপন উপলক্ষে ঈশ্বরদীতে প্রস্তুতি সভা ঈশ্বরদীতে সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাস্তবায়ন-সমন্বয় কমিটির সভা

টানা চতুর্থবার স্পিকার হলেন শিরীন শারমিন চৌধুরী

বার্তা কক্ষঃ
আজকের তারিখঃ শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫৯ অপরাহ্ন

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের স্পিকার হলেন শিরীন শারমিন চৌধুরী। এ নিয়ে টানা চতুর্থবারের মতো স্পিকার নির্বাচিত হলেন তিনি।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) বিকেল ৩টায় রাজধানীর শেরে বাংলানগরে জাতীয় সংসদ ভবনের অধিবেশন কক্ষে দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরু হয়। এতে সভাপতিত্ব করছেন ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকু। এ সময় শিরীন শারমিন চৌধুরীর নাম প্রস্তাব করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য ওবায়দুল কাদের। সমর্থন করেন সংসদের চিফ হুইপ নুর ই আলম চৌধুরী।

স্পিকার হিসেবে একমাত্র শিরীন শারমিন চৌধুরীর নাম প্রস্তাব আসে। আর কোন নাম না থাকায় কার্যপ্রণালী বিধির ৮ ধারা অনুযায়ী ডেপুটি স্পিকার প্রস্তাবটি ভোটে দেন এবং সর্বসম্মতিক্রমে তা কণ্ঠ ভোটে পাস হয়। স্পিকার নির্বাচনের পর অধিবেশন ২০ মিনিট বিরতি দেওয়া হয়। সংসদ অধিবেশনের বিরতিতে চতুর্থবার স্পিকার হিসেবে শপথ নেন শিরীন শারমিন চৌধুরী। সংসদ ভবনে রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে তাকে শপথবাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন।

স্পিকার নির্বাচনের সময় সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদেরসহ সরকারি ও বিরোধী দলের প্রায় সব সংসদ সদস্য অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন।১৯৬৬ সালের ৬ অক্টোবর ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন শিরীন শারমিন চৌধুরী। তার বাবা রফিকউল্লাহ চৌধুরী প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একান্ত সচিব ছিলেন। তার মা অধ্যাপক নাইয়ার সুলতানা বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের সদস্য ছিলেন। তার নানা সিকান্দার আলী ছিলেন পূর্ব পাকিস্তান হাইকোর্টের বিচারপতি। শিরীন শারমিনের স্বামী সৈয়দ ইশতিয়াক হোসেন ওষুধ শিল্পের পরামর্শক। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

১৯৮৯ সালে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি (অনার্স) এবং ১৯৯০ সালে প্রথম স্থানে এলএলএম ডিগ্রি অর্জন করেন শিরীন শারমিন। ২০০০ সালে এসেক্স ইউনিভার্সিটি থেকে পিএইচডি করেন।  ১৯৯২ সালে বার কাউন্সিলের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন শিরীন। ১৯৯৪ সালে হাইকোর্ট বিভাগ ও ২০০৮ সালে আপিল বিভাগে অন্তর্ভুক্ত হন। সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাগুলো পরিচালনার দায়িত্বে থাকা আইনজীবীদের একজন তিনি।

২০০৯ সালে সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য হিসেবে যাত্রা শুরু শিরীন শারমিন চৌধুরীর। এরপর তাকে মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।২০১৩ সালে ৩০ এপ্রিল শিরীন শারমিন দেশের প্রথম নারী স্পিকার নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ছেড়ে দেওয়া রংপুর-৬ (পীরগঞ্জ) আসন থেকে উপ-নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আসেন স্পিকার শিরীন শারমিন।

একাদশ সংসদ নির্বাচনেও শেখ হাসিনা তার শ্বশুরবাড়ির এলাকা পীরগঞ্জের আসনটি শিরীন শারমিনকে ছেড়ে দেন। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনেও এ আসনে শিরীন শারমিনকে নৌকার প্রার্থী করেন শেখ হাসিনা।


এই বিভাগের আরো খবর........
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error: কপি করার অনুমতি নেই !
error: কপি করার অনুমতি নেই !