বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ

তত্বাবধায়ক সরকার বাংলার মাটিতে আর ফিরে আসবে না: আটঘরিয়ায় গালিবুর রহমান শরীফ

বার্তাকক্ষ
আজকের তারিখঃ বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন
আটঘরিয়ার লক্ষীপুরে গালিবুর রহমান শরীফ।

পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গালিবুর রহমান শরীফ বলেছেন, বিএনপিজামায়াত বলেছেন, আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন নাকি তারা হতে দিবে না।বাংলাদেশের সংবিধান রয়েছে। যে সরকার ক্ষমতাই আছে, তার মানে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে সরকার ক্ষমতাই আছে। সে ক্ষমতাই থাকা অবস্থাতে  জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। ওরা তত্বাবধায়ক চাই।কিন্তুু তত্বাবধায়ক সরকার বাংলার মাটিতে আর ফিরে আসবে না।

সোমবার ( অক্টোবর) বিকেলে পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আয়োজনে লক্ষীপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে পথসভার সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।  পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক,সাবেক ভূমিমন্ত্রীর ছেলে গালিবুর রহমান শরীফ বলেন, বিএনপিজামায়াতের লোকেরা বলছে, তারা এই নির্বাচন হতে দেবে না। ওরা সংসদ নির্বাচন বানচাল করতে চাই বিদেশী শক্তিদের সাথে হাত মিলিয়ে। দেশে অরাজনৈতিক শক্তি আবার বাংলাদেশের মানুষের ঘাড়ে চাপিয়ে দিতে চাই। টানা সাড়ে ১৪ বছরে জননেত্রী শেখ হাসিনার যে অভূতপূর্ব উন্নয়ন বাংলাদেশে করেছেন লক্ষীপুর ইউনিয়ন বাসী উন্নয়নের রাজনীতির সাথে থাকবেন।

বিএনপি জামায়াত সন্ত্রাসী, দূর্নীতিবাজ, চোরের দল আওয়ামীলীগ শান্তির রাজনীতিতে বিশ্বাসী  মন্তব্য করে গালিবুর রহমান  বলেন, খালেদা জিয়া এতিমের টাকা খেয়ে সেই মামলায় জেল খাটছেন আজ। জননেত্রী শেখ হাসিনা দয়া করে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন। বিদ্যুৎ এর খাম্বা চুরির টাকা আত্বসাৎ করে কোটি কোটি টাকা মেরে খেয়ে লন্ডন বসে আরাম আয়েশে করছেন তার ছেলে তারেক জিয়া। গত নির্বাচনে এক আসনে একাধিক প্রার্থী দিয়ে মনোনয়ন দেওয়ার নামে টাকা সংগ্রহ করে লন্ডন বসে আন্দোলনের হুমকি দেয়। ২০১৪ সালে কিভাবে জ্যান্ত মানুষ বাসের মধ্যে দরজা আটকে রেখে প্রেট্রোল বোম মেরে মানুষ হত্যা করেছে।

এই তাদের রাজনীতি আটঘরিয়ার লক্ষীপুর ইউনিয়নটি একসময় সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্য ছিল। অনেকে তাদের পরিবারের সদস্যদের হারিয়েছেন, সন্ত্রাসের রাজনীতির কারণে, এখানে আজ তারা উপস্থিত রয়েছেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতাই আসার পর লক্ষীপুরের মানুষ অনেক শান্তিতে আছে, আর সেটি সম্ভব হয়েছে দেশনেত্রী শেখ হাসিনার জন্য তার শান্তির রাজনীতি, উন্নয়নের রাজনীতির কারণেই। আমি বিশ্বাস করি, লক্ষীপুরের মানুষ  সন্ত্রাসের রাজনীতিতে আর ফিরে যেতে চাই না। লক্ষীপুর ইউনিয়নবাসী উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে ঐক্যবদ্ধ থেকে আওয়ামী লীগকে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহবান জানিয়ে গালিবুর রহমান শরীফ  বলেন, আগামী সংসদ নির্বাচন এর আগে যদি জামায়াত বিএনপির সন্ত্রাসীরা আবার সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হয়। আপনারা সবাই মিলে প্রতিহত করবেন।

সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় নির্বাচন হবে। আমি বিশ্বাস করি যে, জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের রাজনীতিকে সাধারন মানুষজন, প্রান্তিক মানুষজন ভোট দিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আবারও বিএনপিজামায়াতের ষড়যন্ত্র ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলা করে নৌকায় ভোট দিয়ে দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করবেন।

সাবেক ভূমিমন্ত্রীর ছেলে গালিবুর রহমান শরীফ তরুন প্রজন্মকে লেখাপড়া করে মানুষ হওয়ার আহবান জানিয়ে অভিভাবকদের উদ্দ্যেশে  বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন। তিনি করে যেতে পারেননি।  তার সুযোগ্য কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা বাবার স্বপ্ন পূরণ করতে দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। শেখ হাসিনা আগামী সংসদ নির্বাচনে ডিজিটাল বাংলাদেশকে স্মার্ট বাংলাদেশ করতে চান।

স্মার্ট বাংলাদেশের জন্য দরকার স্মার্ট নাগরিক। মুরব্বি যারা আছেন, আমি তাদের উদ্দ্যেশ্যে বলছি, আপনাদের সন্তানদের পড়াশুনাতে মনযোগী হতে বলবেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্যই আজ সমস্ত শিক্ষার্থী বছরের প্রথম দিন নতুন বই উপহার পান। আটঘরিয়া উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। আমার প্রয়াত বাবা, যেভাবে এই এলাকাকে উন্নত করে রেখে গেছেন, আমি মনে করি ঈশ্বরদীআটঘরিয়া হবে উত্তরবঙ্গের একটি অর্থনৈতিক প্রাণকেন্দ্র। সাবেক ভূমিমন্ত্রীর সুযোগ্য সন্তান, আবেগ আপ্লুত হয়ে গালিবুর রহমান বলেন, আমার পিতার মৃত্যুর পর এই লক্ষীপুরবাসী অভিভাবক শূন্য হয়ে পড়েছেন। এখানে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে কালো মেঘ আকাশে দেখা যাচ্ছে।

আপনারা বিচলিত হবেন না। আমি মরহুম শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর ছেলে হিসেবে বলতে চাই, এখানে আমার বাবার তিলে তিলে গড়া সংগঠন আমি ধ্বংস হতে দেব না। কাউকে ইজারা দেওয়া হয়নি। আপনারা জানেন, লক্ষীপুর ইউনিয়নবাসী আমার বাবার হাত ধরে জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে অনেককিছু পেয়েছি। আটঘরিয়ার এই রাস্তাঘাট, মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল, কলেজসব ধরনের উন্নয়নকাজ হয়েছে। তবে এটা ঠিক আরেকটি উপজেলা ঈশ্বরদীর তুলনায় আটঘরিয়া অনেক কিছুই পিছিয়ে।  আমি দ্ব্যর্থহীনকন্ঠে বলতে চাই, যদি জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে সেই সুযোগ দিলে আমার বাবা যেমন আটঘরিয়াবাসীকে বেশি আদর দিয়ে সুন্দরভাবে অক্লান্ত পরিশ্রম করে আটঘরিয়া সাজিয়েছেন।

আপনাদের সেই সহযোগীতা পেলে জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে সুযোগ দেন, আমি আপনাদের পাশে থাকব। অঞ্চলে উন্নয়নের জন্য যা দরকার, আপনাদের সন্তানদের কর্মসংস্থান থেকে শুরু করে শিক্ষা উন্নয়নের জন্য যে কাজগুলো আছে আমি সব সময় ওৎপোৎভাবে জড়িত থাকব লক্ষীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি  রবিউল আলমের সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক ছাত্রনেতা হাফিজর রহমান হাফিজের পরিচালনায় বক্তব্যে রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগ সহসভাপতি বাবু চন্দন কুমার চক্রবর্তী, চাঁদভা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, লক্ষীপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রবিউল আলম, জেলা যুবলীগের সদস্য,আহসান হাবীব লন্ডন শাখা ছাত্রলীগ নেতা শরিফুল ইসলাম শরীফ।  


এই বিভাগের আরো খবর........
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error: কপি করার অনুমতি নেই !
error: কপি করার অনুমতি নেই !