বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৯:২৬ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে’ শহরের রেলগেটে ফ্লাইওভার নির্মাণ-এলজিইডির টিমের পরিদর্শন

বার্তা কক্ষঃ
আজকের তারিখঃ বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৯:২৬ অপরাহ্ন

যানজটমুক্ত শহর গড়তে ঈশ্বরদীবাসীর দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি খুবই শিগগিরই বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে। ঈশ্বরদী রেলগেটে ফ্লাইওভার নির্মাণের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) সদর দপ্তরের একটি বিশেষ টিম রেলগেট এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

বুধবার (৩ মার্চ) দুপুরে ঢাকা এলজিইডির প্রকল্প পরিচালক মোঃ সামাজি হোসেনের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলটি এ পরিদর্শন করেন।

ব্রিটিশ আমলের করা নিয়মেই চলছে ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন। এদিকে রূপপুর প্রকল্পের জন্য নতুন রেললাইন নির্মাণ এবং জনবহুল এই জংশন-সংলগ্ন রেলগেট দিয়ে চলাচল করা ট্রেনের সংখ্যাও আগের চেয়ে বেড়েছে। এসব ট্রেন চলাচলের সময় প্রতিদিন অন্তত ২০ বার বন্ধ রাখতে হয় গেটটি। প্রতি সিগন্যালে ১৫ থেকে ২০ মিনিট করে বন্ধ থাকে রেলগেটের দু’পাড়ের যোগাযোগ। এতে যানজটে হাজার হাজার মানুষের পাঁচ ঘণ্টারও বেশি সময় নষ্ট হচ্ছে।

ঈশ্বরদী শহরের রেলওয়ে গেটের লক সিস্টেম সেই ব্রিটিশ আমলের। এরই মধ্যে দেশের বহু রেলগেটে ডিজিটাল পদ্ধতির লক সিস্টেম চালু হলেও ঈশ্বরদী রেলগেটের লক সিস্টেম রয়ে গেছে আগের মতোই। যাত্রীবাহী, তেলবাহী কিংবা মালবাহী ট্রেন ঈশ্বরদীর আগে বা পরের স্টেশন থেকে ছাড়ার সময় রেলগেটটি সুইস কেবিনের মাধ্যমে বন্ধ হয়, ট্রেন ঈশ্বরদী রেলগেট পার না হওয়া পর্যন্ত সেটি খোলে না। এই রেলগেটের ক্ষেত্রে এটিই নিয়ম। ব্রিটিশ আমলের এ নিয়ম এখনও চালু থাকার কারণে রেলগেট বন্ধ হলে প্রতিবার ২০ মিনিট করে বন্ধ থাকে। এ সময়ের মধ্যে স্কুল-কলেজগামী ছাত্রছাত্রী, মুমূর্ষু রোগী বহনকারী অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান, রূপপুর প্রকল্প, ইপিজেডে কর্মরত বিদেশি নাগরিকদের যানবাহন, প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের চলাচলসহ সব ধরনের জীবনযাত্রা রেলগেটে আটকা পড়ে থাকতে হয় প্রতিদিন। নতুন নতুন ট্রেন চালু হওয়ায় এই দুর্ভোগ আরও বেড়েছে। ট্রেন আসা ও যাওয়ার আগে-পরে মিলিয়ে দীর্ঘক্ষণ যানবাহনকে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। এ কারণে এখানে প্রতিদিন ঘণ্টায় ঘণ্টায় দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

সূত্র জানায়, ঈশ্বরদী রেলগেটে ফ্লাইওভার নির্মাণের সার্বিক সম্ভাবতা যাচাইয়ের জন্য এলজিইডির সদর দপ্তর থেকে বিশেষ এই প্রতিনিধি টিমকে ঈশ্বরদী পাঠানো হয়।প্রতিনিধি টিম পরিদর্শন শেষে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন এবং এটি দ্রুত বাস্তবায়নের যা কিছু করা প্রয়োজন সেটি করবেন।

প্রকৌশলী এনামুল কবির আরও জানান, ঈশ্বরদী রেলগেটের ফ্লাইওভারের নকশা ইতিমধ্যেই তিনি সম্পন্ন করেছেন এবং আগামীকাল সেটি এলজিইডির সদর দপ্তরে পাঠাবেন। তিনি বলেন, সংসদ সদস্য নুরুজ্জামান বিশ্বাসের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ঈশ্বরদী রেলগেটের ফ্লাইওভারটি নির্মাণ হতে যাচ্ছে


এই বিভাগের আরো খবর........
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error: কপি করার অনুমতি নেই !
error: কপি করার অনুমতি নেই !