বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০২:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
করোনায় আর স্কুল বন্ধের কথা ভাবা হচ্ছে না: শিক্ষামন্ত্রী ঈশ্বরদীতে করোনা শনাক্ত গত ২৪ ঘন্টায় ৪ জন এমপিওভুক্ত হলো ২ হাজার ৭১৬ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া মোটরসাইকেলের রেজিস্ট্রেশন নয় ঈশ্বরদীতে নারী আনসার সদস্যকে ঘুসি মারলেন ইউপি সদস্য আখতারুল ঈশ্বরদীতে বেপরোয়া গতির মোটরসাইকেল চাপায় পথচারী নিহত ঈশ্বরদীতে হাট নিয়ে দ্বন্দ্বে শঙ্কিত কৃষক ও ব্যবসায়ীরা শিক্ষক উৎপল হত্যা : জিতু ৫ দিনের রিমান্ডে স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে দাদাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত পাবনায় জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠদের মাঝে সনদপত্র ও সম্মননা ক্রেস্ট প্রদান

বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ মুছে ফেলতে পারবে না : প্রধানমন্ত্রী

বার্তাকক্ষ
প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০২:২৭ পূর্বাহ্ন
দুই বোন শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ইতিহাস থেকে বারবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম মুছে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছে। এভাবে জাতি ১৯৭৫ সালের পরের প্রকৃত ইতিহাস জানা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এখন তা আর কেউ পারবে না। কারণ নতুন প্রজন্ম ইতিহাস সম্পর্কে অনেক সচেতন।

শনিবার (১৪ মে) বিকেলে ধানমণ্ডি-৩২-এ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্ট লাইব্রেরির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দুই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর ছোট বোন শেখ রেহানা যৌথভাবে লাইব্রেরির উদ্বোধন করেন। এ সময় বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক উপস্থিত ছিলেন পরে প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি কে এম সাখাওয়াত মুন সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের লাইব্রেরি নতুন প্রজন্মকে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রকৃত ইতিহাস এবং দেশ সম্পর্কে জানতে সাহায্য করবে।

তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতাবিরোধীরা ১৯৭৫ সালের পর ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে জাতির পিতার খুনিদের বিচার বন্ধ করে দিয়েছিল। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ প্রত্যাহার করে খুনিদের বিচারের মাধ্যমে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করেছে। আমার একমাত্র লক্ষ্য জাতির পিতার স্বপ্নের সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ে তুলে মানুষের মুখে হাসি ফোটানো।

শেয়ার করুন...


এই বিভাগের আরো খবর........
.
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error: কপি করার অনুমতি নেই !
error: কপি করার অনুমতি নেই !