শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে দুই সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন চাটমোহরে বড়াল নদী রক্ষায় করনীয় শীর্ষক আলোচনা সভা পাবনায় বিআরটিএর সহকারী পরিচালক ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিটে ব্রিজক্রেন স্থাপনের কাজ সম্পন্ন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে রূপপুর বিদ্যুৎ প্রকল্পের শ্রমিকের মৃত্যু ঈশ্বরদীতে আখের সঙ্গে সাথি ফসল চাষে ভাগ্য ফিরছে কৃষকের ঈশ্বরদীতে দুপুরে বাসা ভাড়া নিয়ে রাতেয় স্ত্রীকে হত্যা ঈশ্বরদী রেলওয়ে লোকোমোটিভ পরিদর্শন করলেন রেলপথ সচিব ঈশ্বরদীতে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উদ্‌যাপন ঈশ্বরদীর সাঁড়া ইউনিয়নে কেক কেটে শেখ হাসিনার ৭৬ তম জন্মদিন পালন

পাবনা-৪, উপ নির্বাচনে মনোনয়ন পেতে মরিয়া হয়ে মাঠে নেমেছে নেতারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৫৩ পূর্বাহ্ন
পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসনে উপনির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী।

পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘড়িয়া) আসনে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দৌড়ে দেড় ডজন নেতার নাম শোনা যাচ্ছে। নেতারা কর্মী ও জনসমর্থন বাড়াতে নানা কৌশল অবলম্বন করছেন। শেষ পর্যন্ত কে নৌকার হাল ধরতে পারবেন, তা নিয়ে চলছে নানা গুঞ্জন ও আলোচনা।

গত ২ এপ্রিল সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলু মৃত্যুবরণ করার পর গত ১৩ এপ্রিল থেকে এই আসনটি শূন্য ঘোষণা করে ইসি। নির্বাচন কমিশন থেকে আগামী আগস্টের শেষ সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা ও সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে উপনির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানানো হয়েছে। এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শামসুর রহমান শরীফ ডিলু পরপর পাঁচবার এমপি নির্বাচিত হন।

সাবেক ভূমিমন্ত্রী ও প্রয়াত এমপি শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর এই আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করে এক ডজনেরও বেশি নেতা মাঠে পরোক্ষ নির্বাচনী তৎপরতা শুরু করেছেন। তাদের অনেকেই করোনাকালে অসহায় ও দুস্থদের মধ্যে ত্রাণ, করোনা প্রতিরোধে ব্যবহার্য মাস্ক, পিপিই, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ইত্যাদি বিতরণের পাশাপাশি বৃক্ষরোপণসহ বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

মনোনয়ন প্রত্যাশীরা জনসমর্থন বাড়াতে উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এ নির্বাচন নিয়ে তোড়জোড় শুরু করেছেন। ইসি এখনও নির্বাচনের তফশিল ঘোষণা না করলেও মনোনয়নপ্রত্যাশীরা ইতোমধ্যেই পরোক্ষভাবে প্রচার কার্যক্রম শুরু করেছেন।

মনোনয়ন দৌড়ে রয়েছেন প্রয়াত সংসদ সদস্য শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর ছেলে ও ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গালিবুর রহমান শরীফ,শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর মেয়ে ও জেলা আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদিকা মাহজেবিন শিরিন পিয়া, শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর সহধর্মীনি কামরুন্নাহার শরীফ উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার অন্যতম কৌঁসুলি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী রবিউল আলম বুদু সরদার,জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ও ঈশ্বরদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান বিশ্বাস,ঈশ্বরদী পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি  আবুল কালাম আজাদ মিন্টু ,জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য এবং সাবেক সংসদ সদস্য পাঞ্জাব আলী বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের সহসম্পাদক বশির আহমেদ বকুল, মৎস্যজীবী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক প্রকৌশলী আব্দুল আলিম, ব্যারিস্টার সৈয়দ আলী জিরু, সাবেক সেনা কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম রবি, ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নায়েব আলী বিশ্বাস, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম লিটন, ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান স্বপন, ব্যবসায়ী জালাল উদ্দিন তুহিন, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী রকি প্রামানিক, ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোহাম্মাদ রশিদুল্লাহ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেত্রী ড. মুসলিমা জাহান ময়না প্রমুখ।

প্রয়াত এমপির পরিবারের সদস্যদের মধ্যে কেউ মনোনয়ন পেতে পারেন-এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর ছেলে গালিবুর রহমান শরীফ তিনি জানান, তার বাবা আমৃত্যু আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেছেন, দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই পরিবারের অথবা অন্য যাকেই যোগ্য মনে করুন না কেন, তার জন্য সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে এ আসনটি আবার উপহার দেব।

বীরমুক্তি যোদ্ধা নুরুজ্জামান বিশ্বাস বলেন পাবনা-৪(ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া)আসনের আসন্ন সংসদ সদস্য উপনির্বাচনে দলের প্রার্থী হবার জন্য মনোনয়ন চাইবো। যদি আওয়ামী লীগের সভানেত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দেন তাহলে সবাইকে একতাবদ্ধ করে নির্বাচন করবো এবং নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করবো।

জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও ঈশ্বরদী উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাহজেবিন শিরিন পিয়া বলেন আমি নির্বাচিত হয়ে বাবার সেই স্বপ্নগুলো পূরণের সাথে সাথে ঈশ্বরদী ও আটঘড়িয়াকে উন্নয়নের শিখরে নিয়ে যাব। এসময় তিনি আরও বলেন রেলগেটে ফাইওভার নির্মাণ, ষ্টেশন রি-মডেলিং, বিমান বন্দর চালু, পাবলিক লাইব্রেরী, অডিটোরিয়াম নির্মাণ, কলকাতাগামী মৈত্রি এক্সপ্রেসে ঈশ্বরদীতে যাত্রী উঠানামার ব্যবস্থা, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাসহ স্থানীয় জনগোষ্ঠির আর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য নিবেদিতভাবে কাজ করবো।

আব্দুল আলিম বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে কেন্দ্র ও নির্বাচনীয় এলাকায় সুনামের সঙ্গে সাংগঠনিক কাজ করছি। এলাকায় শিক্ষা, বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়ন ও সেবামূলক কাজ করেছি।’

ব্যারিস্টার সৈয়দ আলী জিরু বলেন, ‘ঈশ্বরদী-আটঘড়িয়া একটি চরম সম্ভাবনাময় এলাকা। কিন্তু দীর্ঘকাল ধরে যোগ্য নেতৃত্ব ও লোকের অভাবে সেটা বাস্তবায়ন হয়নি। এখানে স্বচ্ছ লোকের অভাব।

সাবেক সংসদ সদস্য পাঞ্জাব আলী বিশ্বাস বলেন, ‘বিগত নির্বাচনে নেতাকর্মী ও হাজার হাজার মানুষ আমাকে প্রার্থী ঘোষণা করেছিল। ব্যাংকে এক কোটি ৬৫ লাখ টাকা ঋণ ছিল। সঙ্গে থাকা নেতাকর্মী ও জনগণ চাঁদা তুলে ঋণ পরিশোধ করেছিলেন। কিন্তু সেই সময় দুর্নীতিবাজদের কাছে মনোনয়নযুদ্ধে আমি হেরে গিয়েছিলাম।

ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নায়েব আলী বিশ্বাস বলেন, ‘দলের জন্য জীবন-যৌবন বিসর্জন দিয়েছি। জেল জুলুম খেটেছি। তাই এবার মনোনয়ন চাইবো।যদি আওয়ামী লীগের সভানেত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দেন তাহলে ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচন করবো।

শেয়ার করুন...


এই বিভাগের আরো খবর........
.
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error: কপি করার অনুমতি নেই !
error: কপি করার অনুমতি নেই !