মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১১:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
কীটতত্ত্ব সমিতি’র সভাপতি দেবাশীষ, সা. সম্পাদক রুহুল আমিন ঈশ্বরদীর আ’লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ আর নেই ঈশ্বরদীতে বোরো ধান-চাল সংগ্রহ শুরু ঈশ্বরদীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ঈশ্বরদীতে শেখ হাসিনার ৪২তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত রূপপুর প্রকল্পে আউটার কন্টেইনমেন্ট ডোম স্থাপনের কাজ শুরু টিটিই শফিকুলের ঘটনায় তদন্ত প্রতিবেদন জমা ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স জঞ্জাল মুক্ত করার নির্দেশ নূরুজ্জামান বিশ্বাস এমপি’র রাজশাহীতে টেলিমেডিসিন সেবা চালু করল বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতাল দেশের সব বিমানবন্দরে বিটিভি দেখানোর নির্দেশ

পাবনার বেড়ায় দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে নিয়ে শিক্ষক উধাও

বার্তাকক্ষ
প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১১:৩০ অপরাহ্ন
দুজন দুজনার।

পাবনার বেড়া উপজেলায় এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে রেখে নিজ স্কুলের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তিনি ভারেঙ্গা একাডেমির সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত।

শুক্রবার (১৩ মে) ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মাহফুজার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। অভিযুক্ত শিক্ষক হাসমত হোসেন উপজেলার নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের বাটিয়াখড়া গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফের ছেলে।

একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানায় ভারেঙ্গা একাডেমির সহকারী শিক্ষক হাসমত হোসেনের কাছে ওই  শিক্ষার্থী নিজ বাড়িতে প্রাইভেট পড়তো। প্রাইভেট পড়ানোর সুযোগে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সোমবার (০৯ মে) ওই শিক্ষার্থী যথারীতি স্কুলে যায়। তবে স্কুল ছুটির পর সে আর বাড়ি ফিরে আসেনি তার অভিভাবকরা দুদিন ধরে খোঁজাখুঁজি করেন।

পরে ওই শিক্ষার্থী সহপাঠীদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অভিভাবকরা গৃহশিক্ষক হাসমত হোসেনের কাছে ফোন করেন। তিনি ওই কিশোরীকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার কথা স্বীকার করেন এবং তাকে বিয়ে করেছেন বলেও জানান।

এ ঘটনায় বুধবার (১১ মে) ছাত্রীর বাবা রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে বেড়া মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্ত শিক্ষকের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

ছাত্রীর বাবা রফিকুল ইসলাম বলেন, হাসমতকে আমি অনেক বিশ্বাস করতাম। তার কাছে আমার মেয়ে প্রাইভেট পড়তো। কিন্তু সে এত বড় প্রতারক, তা জানতাম না। এ ঘটনায় তিনি ও তার স্ত্রী মানসিকভাবে বিপর্যস্ত বলে জানান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,সহকারী শিক্ষক হাসমত হোসেন সাত বছর আগে বেড়া উপজেলার বাটিয়াখড়া গ্রামের মৃত হিরা মিঞার মেয়ে খাদিজা খাতুনকে বিয়ে করেন। তাদের দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

ভারেঙ্গা একাডেমির প্রধান শিক্ষক মাহফুজার রহমান সাংবাদিকদের বলেন,‘প্রায় এক যুগ ধরে হাসমত এই স্কুলে শিক্ষকতা করছেন। আগে কখনো এমন আচরণ তার মধ্যে লক্ষ্য করিনি। তিনি এমন ন্যাক্কারজনক কাজ করেছেন যে,আমরাও সামাজিকভাবে লজ্জার মধ্যে পড়েছি।

এ ব্যাপারে বেড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার বলেন, আমাদের কাছেও অভিযোগ এসেছে। ওই ছাত্রীকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন...


এই বিভাগের আরো খবর........
.
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error: কপি করার অনুমতি নেই !
error: কপি করার অনুমতি নেই !