শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
পাবনায় প্রতিটি থানায় হচ্ছে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত লাশঘর আজিমনগর রেললাইনে ট্রেনে কাটা মৃতদেহ উদ্ধার ঈশ্বরদীতে দিনে দুপুরে অবসর প্রাপ্ত অধ্যক্ষের বাড়িতে দুর্ধর্ষ চুরি সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে ঈশ্বরদীতে আ.লীগের বিক্ষোভ লালপুরে মানববন্ধনের বিরুদ্ধে প্রধান শিক্ষকের সংবাদসম্মেল ঈশ্বরদীতে নিরাপদ পানি সরবরাহ প্রকল্পের কাজের উদ্বোধন জাতীয় শোক দিবসে পাবনায় জেলা তাঁতী লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত স্কুল-কলেজে র‌্যাগডের নামে ডিজে পার্টি-অশ্লীলতা ও অবৈধ কার্যকালাপ বন্ধের নির্দেশ ফ্লাইওভারের গার্ডার চাপায় প্রাইভেট কারের ৫ যাত্রী নিহত বেঁচে রইলেন নবদম্পতি দাদাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় (সেসিপ) এ জাতীয় শোক দিবস পালন

ঈশ্বরদীতে নারী আনসার সদস্যকে ঘুসি মারলেন ইউপি সদস্য আখতারুল

বার্তাকক্ষঃ
প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন

অনিয়মের প্রতিবাদ করায় কর্তব্যরত অবস্থায় একজন নারী সদস্যকে অশ্রাব্য গালাগাল,লাঞ্চিত ও প্রকাশে ঘুষি মেরেছেন ইউপি সদস্য আক্তারুল ইসলাম।

রোববার উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের ভোটের হালনাগদ কার্যক্রম চলকালীন সময় অনিয়মে বাধা দেওয়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ভোটার হালনাগাদ কার্যক্রমের টেকনিক্যাল প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় তাকেও গালিগালাজ করে ওই ইউপি মেম্বার।আনসার নারী সদস্য অভিযোগ করে বলেন নারীদের লাইনে গিয়ে নিয়ম ভঙ্গ করে নিজের পরিচিত মানুষদের বে-ছে আগে প্রবেশ করাচ্ছিলেন ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার আক্তারুল।

আমি ঐ লাইনের দায়িত্ব থাকায় তাকে নিষেধ করলে অকথ্য ভাষায় আমাকে গালিগালাজ করেন। ভোটার হালনাগাদের সময় মহিলা লাইনে গিয়ে নিয়ম ভঙ্গ করে নিজের পরিচিত মানুষদের বেছে বেছে প্রবেশ করান।লাইনের দায়িত্ব থাকা মহিলা আনসার সদস্য সুরাইয়া আক্তার নিষেধ করলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।

এভাবে তার বিশৃঙ্খলা বাড়তে থাকলে টেকনিক্যাল ইন্জিনিয়ার ও এমন অনিয়ম করতে নিষেধ করে ইউপি সদস্য আক্তারুল ইসলামকে।তখন সে রাগম্বিত হয়ে ইউনিফর্ম পরা মহিলা আনসার সদস্য সুরাইয়া আক্তারকে টেনে হিঁচড়ে গেট থেকে বেড় করে দেয় ও ঘুষি মারে এবং টেকনিক্যাল ইন্জিনিয়ার সাইফুল ইসলামকেও গালিগালাজ করে। এবং টানতে টানত বাহিরে নিয়ে যায় এক পর্যায়ে ঘুষি মারে এবং বলে এই এলাকা কি তোর বাপের এটা আমার এলাকা, তুই কে? এ বিষয়ে সুরাইয়া আক্তার বলেন আমাকে খুব বাজে ভাষায় গালিগালাজ করে এবং টেনে হিচড়ে বের করে দেন এবং সজরে ঘুষি মারেন।

এ বিষয়ে সলিমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাবলু মালিথা বলেন আসলে ভোটের হালনাগাদের টেকনিক্যাল ইন্জিনিয়ার এবং ইউপিসদস্যকে চিনতে পারেনি। একটা ভুল বোঝাবুঝি। তবে খুব বেশি কিছু হয় নি আমি ঘটনাস্হলে থেকে মিমাংসা করে দিয়েছি।

বিষয়ে উপজেলা আনসারও ভিডিপি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন বলেন বিষয়টি আমি শুনেছি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, নির্বাচন অফিসার সহ আমরাএই ইউপি সদস্যর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবো। তাছাড়া আনসার সদস্য সুমাইয়া আক্তারকে লিখিত ভাবে অভিযোগ দেওয়ার কথা বলেছি।

শেয়ার করুন...


এই বিভাগের আরো খবর........
.
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error: কপি করার অনুমতি নেই !
error: কপি করার অনুমতি নেই !